শুরুর আগেই ‘৮০০ কোটি’ রুপি আয় আইপিএলে

শেয়ার করুন

শুরুর আগেই ‘৮০০ কোটি’ রুপি আয় আইপিএলে

আগামী ২৬ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। সময়ের হিসেবে এখনও ১৪ দিন বাকি। তবে তার আগে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) জানালো, ইতোমধ্যে আইপিএল আয় করে ফেলেছে ৮০০ কোটি রুপি।

শুধু স্পন্সরশিপ থেকেই এই আয় হয়েছে বলে জানিয়েছেন, বিসিসিআইয়ের সেক্রেটারি জয় শাহ। আইপিএলের স্পন্সরশিপ থেকে এটাই এখন পর্যন্ত বিসিসিআইয়ের সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড।

এর আগে আইপিএলের ১৪ আসরে আট দলের টুর্নামেন্ট দেখেছিল দর্শকরা। প্রথমবারের মতো ১০ দল নিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে আইপিএল কর্তৃপক্ষ। দুই দল বাড়াতে আইপিএলে এবার ম্যাচ সংখ্যাও বেড়েছে। ফলে স্পন্সরশিপ থেকে সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড গড়তে পেরেছে বিসিসিআই।

এবার আইপিএলের টাইটেল স্পন্সর টাটা। এর আগে থাকা টাইটেল স্পন্সর থাকা ভিভো ও বাইজু থেকে তারা হিসেবে কম অর্থ দিচ্ছে। তবে টাটার সঙ্গে আরও দুটি সহযোগী স্পন্সর পাওয়াতে অর্থ আয়ের পরিমাণ বেড়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের।

বিসিসিআইয়ের সেক্রেটারি জয় শাহ লাভের অঙ্ক সরাসরি বলতে না চাইলেও রেকর্ড পরিমাণ স্পন্সরশিপ মুনাফার কথা জানিয়ে বলেন, ‘আইপিএলের যে নিজস্ব একটা ব্র্যান্ড ভ্যালু আছে সেটা দেখা যাচ্ছে। নতুন স্পন্সর পেয়ে আমরা খুব খুশি। মোট কত টাকা আমাদের ভাণ্ডারে এসেছে তা নিয়ে আমি মন্তব্য করতে চাই না। তবে এ বছর আমরা স্পন্সরশিপ থেকে রেকর্ড পরিমাণ অর্থ পেয়েছি।’

জয় শাহ না বললেও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম প্রকাশ করেছে, আইপিএলের অফিসিয়াল পার্টনার হওয়ার সুযোগ থাকে ৬ সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের। এবারই প্রথম ৬টি জায়গাই পূরণ হয়েছে। এর মধ্যে টাইটেল স্পন্সর থেকে এসেছে ৫০০ কোটি রুপি। বাকি স্পন্সরগুলো মিলে দিচ্ছে ৩০০ কোটি রুপি।

২৬ মার্চ চেন্নাই সুপা কিংস এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে এবারের আইপিএল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.