সোনারগাঁ থানায় একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি ডাকাত সর্দার মকবুল হোসেন গ্রেফতার

শেয়ার করুন

সোনারগাঁ থানায় একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি ডাকাত সর্দার মকবুল হোসেন গ্রেফতার

টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুর উপজেলার দীঘা কাতলী গ্রামের মোঃ শামীম মিয়া, পিতা- সোনা মিয়ার ছোট ভাই মোঃ জাহিদ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকুরী পায়। জাহিদের ১২/০১/২০১৮ তারিখ খাগড়াছড়ি সেনানিবাসে যোগদানের তারিখ ছিল। টাঙ্গাইল জেলা হইতে সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে নিযোগপ্রাপ্ত আরো ০৬ জন সহ শামীম, শাহীন, জাহিদ তিন ভাই একটি মাইক্রোবাস নিয়ে টাংগাইল হইতে খাগড়াছড়ি উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

ইং ১১/০১/২০২১ তারিখ রাত্রী ২৩.৩০ ঘটিকায় সোনারগাঁ থানাধীণ ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পিরোজপুর ইউনিয়নের চর চেংগাকান্দি নামক স্থানে এইচ,কে,জি ষ্ট্রীল মিলের সামনের রাস্তায় পৌঁছালে প্রচন্ড যানযট সৃষ্টি হয় । তাহাদের গাড়ী যানজটে আটকা পড়ে যায়। যানজটে আটকা পড়া তাদের মাইক্রোবাসটি ডাকাতদল দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হইয়া ডাকাতির উদ্দেশ্যে আক্রমন করে। এসময় ভিকটিম মোঃ শাহিন মিয়া বাঁধা দিলে ডাকাতদল তাহাকে ধারালো ছুরি দ্বারা এলোপাথাড়ি ভাবে কুপাইয়া গুরুতর জখম করে।

স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় মাইক্রোবাসে থাকা অন্যান্যরা শাহীনকে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাহাকে মৃত ঘোষনা করেন।

মামলাটি তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী ১। মকবুল হোসেন (২৭), পিতা- ফজর আলী , গ্রাম- আষারিয়ার চড়, উপজেলা/থানা- সোনারগাঁও, জেলা -নারায়ণগঞ্জ সহ অন্যান্য ডাকাতদের বিরুদ্ধে অভিযোগে সত্যতা পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আসামী মোঃ মকবুল হোসেন এলাকার চিহ্নিত ডাকাত।

সে তার ডাকাতদল সহ দীর্ঘদিন যাবত সোনারগাঁ সহ আশেপাশে থানা এলাকায় ডাকাতিসহ ছিনতাই করে থাকে। পুলিশের গ্রেফতারের ভয়ে সে দীর্ঘ দিন যাবৎ পলাতক ছিল। অদ্য ইং ১৪/০৭/২০২১ তারিখ এএসআই (নিঃ)/ মোঃ এজাজুল হক সঙ্গীয় ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডাকাত সর্দার মোঃ মকবুল হোসেনকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সহায়তায় নিউটাউন এলাকা হইতে আটক করেন।

তাহার বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানা ডাকাতি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি সহ একাধিক মামলা রয়েছে। আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *